মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সাধারণ তথ্য

১। প্রশিক্ষণ কাযর্ক্রমঃ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী দেশের সর্ববৃহৎ Training Oriented একটি শৃঙ্খলা বাহিনী। এ বাহিনীর কার্যক্রম তৃণমূল পর্যায়ে ইউনিয়ন ও গ্রাম পর্যন্ত বিস্তৃত। এ বাহিনী প্রশিক্ষিত জাতী গঠণের মাধ্যমে সামাজিক শৃঙ্খলা ও উন্নয়ন করতে অঙ্গীকারাবদ্ধ। এই বাহিনী সারাদেশ ব্যপী সামরিক ও বে-সামরিক বিষয়সহ কারিগরী ও পেশাভিত্তিক অনেক বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। প্রশিক্ষণের প্রধান লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিম্নরূপঃ

*।এ বাহিনীর সদস্য-সদস্যাদেরকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সক্রিয় অংশগ্রহণ করতে সক্ষম করে তোলা।

*। পেশা, দায়িত্ব এবং শৃঙ্খলভাবে গড়ে তোলা।

*। সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রশিক্ষিত ও দক্ষ শ্রমশক্তি হিসেবে গড়ে তোলা 

*। নতুন সদস্য-সদস্যাদের ধারণা প্রদান করা ও প্রেষণা দান করা।

*। নিরাপত্তা প্রশিক্ষণ প্রদান করে সামরিক প্রশিক্ষণ প্রদান করে দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় এবং  জরূরী অবস্থা মোকাবেলার জন্য গড়ে তোলা।

            *। সামাজিক ও অর্থনৈতিক ভাবে সাবলম্বী করে গড়ে তোলা।

  এ লক্ষ্যকে সামনে রেখে প্রতিবছর অত্র রেঞ্জ হতে নিম্নবর্ণিত প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়ে থাকেঃ

ক। গাড়ী চালনা ও রক্ষণাবেক্ষণ প্রশিক্ষণঃ দেশের সড়ক দূর্ঘটনা একটি নিত্য-নৈমিত্তিক ব্যপারে পরিনত হয়েছে। অদক্ষ্য ড্রাইভারের কারণে প্রতিদিন সড়ক দূর্ঘটনা ঘটছে এবং মূল্যবান জীবন নষ্ট হচ্ছে। এই পরিস্থিতি এব ভয়াবহ রূপ ধারণ করছে। প্রতি বছর প্রশিক্ষণ নির্দেশিকা অনুযায়ী দক্ষ ড্রাইভার তৈরীর জন্য অত্র দপ্তরে  ভিডিপি  সদস্যদের গাড়ী চালনা ও রক্ষণাবেক্ষণ প্রশিক্ষণ কাযর্ক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

খ। আইসিটি প্রশিক্ষণঃ বর্তমান যুগ অবাধ তথ্য ও প্রযুক্তি সর্বারাহের যুগ। আমরা ও এর ব্যতিক্রম নয়। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে অত্র দপ্তর হতে প্রতি বছর আনসার ও ভিডিপি সদস্য-সদস্যদের কম্পিউটার প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়ে থাকে।

গ। ট্যাকটিকাল প্রশিক্ষণঃ ব্যাটালিয়ন আনসার সদস্যদের দক্ষ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য অত্র দপ্তরে প্রতিবছর ট্যাকটিকাল প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়ে থাকে।

। আনসার-ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংকঃ  চট্টগ্রাম ও পাবর্ত্য রেঞ্জ চট্টগ্রামে আনসার-ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংক ১৬ টি শাখার মাধ্যমে এ পর্যন্ত আনসার ও ভিডিপির ২,২৫,৮৬০ জন শেয়ার হোল্ডারের মাঝে ২,৮৯,৩৫,৩০০/- টাকা ঋণ বিতরণ করে তাদের স্বাবলম্বী হওয়ার ক্ষেত্রে অবদান রেখে যাচ্ছে।